মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

এক নজরে লালমনিরহাট

আমাদের সম্পর্কে

গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীন গণপূর্ত অধিদপ্তর বাংলাদেশে নির্মাণ অঙ্গনের পথিকৃত। প্রায় দুই শত বছর ধরে গণপূর্ত অধিদপ্তর দেশের অবকাঠামো উন্নয়নের জন্য প্রয়োজনীয় মান নির্ধারণ করে আসছে। এই প্রতিষ্ঠান সরকারী নির্মান প্রকল্প বাস্তবায়নে কেন্দ্রীয় ভূমিকা পালন করে থাকে। এছাড়া অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসাবে স্বায়ত্তশাসিত সংস্থাগুলোর প্রকল্প বাস্তবায়নেও এর ভূমিকা রয়েছে। গণপূর্ত অধিদপ্তরে সিভিল, ইলেকট্রিক্যাল ও মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারসহ একটি দক্ষ ও অভিজ্ঞ জনবল রয়েছে। এছাড়া স্থাপত্য অধিদপ্তরের স্থপতিরা এদের পাশাপাশি কাজ করে থাকেন। বছরের পর বছর ধরে গড়ে ওঠা  পেশাদারিত্ব ও কাজের মান গণপূর্ত অধিদপ্তরের অভিজ্ঞতাকে আরো সমৃদ্ধ করেছে। তাই যেকোনো নির্মাণ প্রকল্পের জন্য গণপূর্ত অধিদপ্তর ই সবার প্রথম পছন্দ। সরকারের প্রধান নির্মাণ সহযোগী প্রতিষ্ঠান হওয়া ছাড়াও গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের নিবিড় তত্ত্বাবধানে এটি প্রতিনিয়ত দেশের নির্মাণ শিল্পে সংশ্লিষ্ট প্রকল্পসমূহের তদারকি ও গতিবৃদ্ধি করে যাচ্ছে

 

 

 

গণপূর্ত অধিদপ্তরের কার্যক্রম

গণপূর্ত অধিদপ্তরের অবদানের মধ্যে রয়েছে জাতীয় উন্নয়ন, জাতীয় নিরাপত্তা এবং আন্তর্জাতিক সম্পর্কের জন্য সকল ধরনের ভৌত ও সামাজিক অবকাঠামো নির্মাণ। এর কার্যক্রম দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল পর্যন্ত বিস্তৃত। গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান দায়িত্বগুলো নিচের তালিকায় দেখানো হয়েছে। এটা উল্লেখ করা প্রয়োজন যে, প্রায় সকল সরকারী অবকাঠামো প্রকল্পের স্থাপত্য পরিকল্পনা ও নকশা,গণপূর্ত অধিদপ্তরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ পরামর্শক্রমে স্থাপত্য অধিদপ্তর করে থাকে।

 

গণপূর্ত অধিদপ্তরের কাজের ক্ষেত্র:

 

১.   সরকারি ভবন এবং স্থাপনা নির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষণ।

২.   সরকারি পরিত্যক্ত সম্পত্তির সুষ্ঠু রক্ষণাবেক্ষণ এবং ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করা।

৩.   নির্মাণ সামগ্রীর গুনগত মানের স্থিতিশীলতায় ভূমিকা রাখা।

৪.   কেপিআই স্থাপনাসহ অন্যান্য সরকারি স্থাপনা নির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষণ।

৫.   সরকারি বিভিন্ন স্থাপনার কাঠামো নকশা এবং ইলেক্ট্রোমেকানিক্যাল নকশা প্রস্তুতকরণ।

৬.   বিভিন্ন স্মৃতিস্তম্ভ এবং ঐতিহাসিক স্থাপনাসমূহের পুনঃনির্মাণ, রক্ষণাবেক্ষণ এবং সংস্কার।

৭.   পাবলিক উদ্যানসমূহের রক্ষণাবেক্ষণ এবং উন্নয়ন।

৮.   সরকারি অফিস ও বাসভবনের ভাড়া নির্ধারণ।

৯.   কর বহির্ভূত রাজস্ব আদায়।

১০.  সিডিউল অব রেটস প্রণয়ন।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter